তারিখ : ০১ অক্টোবর ২০২২, শনিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নওগাঁয় অপহরণ করে ধর্ষণ,গ্রেফতার ১

নওগাঁয় কিশোরীকে অপহরণ করে ধর্ষণ ও পতিতাবৃত্তিতে বাধ্যকারী গ্রেফতার
[ভালুকা ডট কম : ১২ আগস্ট]
নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলা থেকে ১১ বছরের এক কিশোরীকে অপহরণের পর ধর্ষণ ও পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করানোর অভিযোগে অপহরণকারীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব-৫ জয়পুরহাট ক্যাম্পের সদস্যরা। গ্রেফতারকৃত ওই অপহরণকারীর নাম সালাম হোসেন (৪০)। সে নওগাঁ সদর উপজেলার বর্ষাইল গ্রামের বয়তুল আলীর ছেলে। বুধবার রাত ১১টার দিকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান র‌্যাব-৫। এর আগে রাত ৮টার দিকে নওগাঁ শহরের কাঁঠালতলী এলাকার একটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় ওই বাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয় অপহরণের শিকার ওই কিশোরীকে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ১১ জুলাই দুপুরে নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলার নজিপুর বাজার এলাকার থেকে ষষ্ঠ শ্রেণিপড়–য়া ওই কিশোরীকে জোর করে সিএনজিতে তুলে নিয়ে যান সালাম হোসেন ও তাঁর সহযোগীরা। এরপর অজ্ঞাতনামা একটি বাড়িতে নিয়ে গিয়ে অপহরণকারী সালাম হোসেন কয়েকদিন ধরে ভিকটিমকে ধর্ষণ করে এবং অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে ওই বাড়ীতে নিয়ে এসে অর্থের বিনিময়ে কিশোরীকে জোরপূর্বক পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করে। এসময় এলাকার লোকজনের সন্দেহ হওয়ায় অপহরণকারী সালাম হোসেন ওই বাসা ছেড়ে অন্য বাসা ভাড়া নেন। সেখানেও ওই কিশোরীর সাথে একই কাজ করেন তিনি। পরবর্তীতে গত ২৫ জুলাই বাসা বদল করে নওগাঁ শহরের ভবানীপুর দক্ষিণ পাড়া মোজাফফর রহমানের বাসার নিচতলার একটি ফ্লাট ভাড়া করে কিশোরীকে নিয়ে উঠেন এবং সেখানেও অভিযুক্ত নিজে ধর্ষন করে এবং জোরপূর্বক টাকার বিনিময়ে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করে।

অপহরণের পর অভিযুক্ত সালাম হোসেন কিশোরীর বাবার কাছে মেয়ে ফিরিয়ে দেওয়ার বিনিময়ে ৫০ হাজার টাকা মুক্তিপণ চায় এবং ৫০ হাজার টাকা বিকাশের মাধ্যমে অপহরণকারীকে প্রদান করলেও কিশোরীকে ফেরত দেয়নি। এরপর অভিযুক্ত ধর্ষক ও অপহরণকারী আরও ১ লাখ টাকা দাবি করে ওই কিশোরীর বাবার কাছে। পরবর্তিতে কিশোরীর বাবা জয়পুরহাট র‌্যাব-৫ ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডারকে ঘটনাটি অবগত করলে ছায়া তদন্ত শুরু করেন এবং নিজস্ব সোর্সের মাধ্যমে তদন্ত শুরু করে তথ্যপ্রযুক্তির সাহায্য নিয়ে অপহরণকারীর অবস্থান চিহিৃত করে বুধবার রাত ৮টার দিকে নওগাঁ শহরের কাঁঠালতলী এলাকার মোজাফফর রহমানের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে নিচতলা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয় এবং অপহরণের শিকার ওই কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়।

পত্নীতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামসুল আলম শাহ্ বলেন, এক কিশোরীকে অপহরণ, ধর্ষন ও পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করার অভিযোগে র‌্যাব-৫ জয়পুরহাট ক্যাম্পের সদস্যরা অপহৃত কিশোরী ও এক অপহরণকারীকে আটক করেছে। এ ঘটনায় ওই কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেছে।#




সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অপরাধ জগত বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫২২২ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই