তারিখ : ২১ জুলাই ২০২৪, রবিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

সংস্কারের কয়েক মাস না যেতেই খানা খন্দ

সংস্কারের কয়েক মাস না যেতেই
ঢাকা ময়মনসিংহ সড়কের ভালুকার ভরাডোবা অংশে খানা খন্দ ঝুকি নিয়ে চলছে যান বাহন
[ভালুকা ডট কম : ৩০ মার্চ]
ব্যস্ততম ঢাকা-ময়মনসিংহ ফোরলেন সড়কের ভালুকার ভরাডোবা ক্লাবের বাজার অংশে সংস্কারের কয়েক মাস না যেতেই কার্পেটিং উঠে গিয়ে বড় বড় খানা খন্দের সৃষ্টি হওয়ায় ঝুকি নিয়ে যান বাহন চলাচল করছে। গর্তে পড়ে প্রায়ই ছোটবড় গাড়ী উল্টে দুর্ঘটনা ঘটছে।

ভরাডোবা ক্লাবের বাজার হতে বাঘসাতরা ব্রীজ সংলগ্ন ঢাকা ৮৩ ময়মনসিংহ ৩৯ মাইলষ্টোন খুটি পর্যন্ত ঢাকাগামী লেনে রাস্তার ভিটুমিন ও খোয়া উঠে গিয়ে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয়রা জানায় বৃষ্টি হলে পানি জমে  রাস্তার ওই অংশ যান চলাচলের সম্পুর্ণ অনুপযোগী হয়ে যায়। এ সময় ধীর গতিতে দুর পাল্লার যাত্রীবাহী বাস সহ পন্যবাহী ট্রাক ও সি এন জি অটো চলাচল করে থাকে। এসব খানাখন্দে পন্যবাহী ট্রাক বাস বিকল হয়ে যানজটে ভোগান্তিতে পরতে হয় বলে চালকরা জানান। সড়কটির এ অংশে বেহাল দশার কারনে যানজট সৃষ্টি হলে আসন্ন ঈদুল ফিতরে ঘরমুখো মানুষ চরম ভোগান্তিতে পরবে বলে চালকদের আশংকা।

স্থানীয়দের অভিযোগ পাশাপাশি লেনে একই সময়ে নির্মিত উল্লেখিত অংশে রাস্তায় নিম্ন মানের কাজ হওয়ায় গত বছর ২০২৩ সালের আগষ্ট মাসে ব্যপক খানাখন্দ ও বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়। এ সময় ঢাকাগামী লেনের ওই অংশ প্রায় দুই মাস কাল আধা কিলোমিটার দুইদিক বন্ধ রেখে সড়ক ও জনপথ বিভাগ ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক সংস্কার কাজ করে। এ সময় সড়কের ওই অংশে পশ্চিমের লেনে ঝুকি নিয়ে যানবাহন আসা যাওয়া করে। ক্ষতি গ্রস্ত সড়কের খানাখন্দ দায়সারা ভাবে ভরাট করে সড়কটি খুলে দিলে পুনরায় ঢাকাগামী লেনে যানবাহন চলাচল শুরু হয়। নিম্ন মানের কাজ ও পর্যাপ্ত ভিটুমিন না দেয়ায় ৬ মাসের মধ্যেই পাথর সুরকি আলগা হয়ে ভাঙ্গন শুরু হওয়ায় অল্প সময়ের ব্যবধানে রাস্তার ব্যাপক খানাখন্দের সৃষ্টি হয়। গত কয়েকদিন পূর্বে উল্লেখিত স্থানে গর্তে পড়ে সিএনজি উল্টে গেলে ভালুকা পৌর এলাকার কলেজ শিক্ষক উসমান গণি তুহিন মাথায় ও শরীরে আঘাত পেয়ে গুরুতর আহত হন।  

উত্তরের ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, শেরপুর ও জামালপুর জেলার যাত্রী ও পন্য পরিবহনে রাজধানী ঢাকা ও চট্রগ্রাম সহ দক্ষিনাঞ্চলের সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নতির লক্ষে কয়েক বছর আগে ঢাকা ময়মনসিংহ সড়কটি ফেরলেনে উন্নীত করায় এ অঞ্চলের মানুষের অর্থনৈতিক উন্নয়নের দ্বার উন্মোচিত হয়। অল্প সময়ের ব্যবধানে কিছু কিছু স্থানে রাস্তার ব্যাপক ক্ষতি সাধন হলে তা পুনঃ সংস্কারও হয়েছে। তবে ভালুকার উল্লেখিত অংশটি সংস্কার করার কয়েক মাসের মধ্যেই পূর্বাবস্থায় ফিরে যাওয়ায় যাবাহন চালক ও যাত্রীদের মধ্যে বিরুপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

ফুলপুর হতে পন্যনিয়ে যাওয়া ঢাকাগামী ট্রাকের চালক আলামীন মিয়া জানান ভালুকার ভরাডোবা এলাকায় রাস্তা এত খারাপ হয়েছে যে তারা অনেক কষ্টে ওই অংশটুকু অতিক্রম করে থাকেন। প্রায় সময় গর্তে পড়ে পাতি ভাঙ্গে চাকা পাঞ্চার হয়ে আটকা পরতে হয়। এ সময় যানজট লেগে যায়। স্থানীয় ভাবে যাত্রী বহনকারী অটো সি এন জি চালকরা জানান গর্তে পড়ে প্রায়ই তাদের গাড়ী উল্টে যাত্রীরা আহত হয়। যে কোন সময় ভয়াবহ দুর্ঘটনার আশংকা রয়েছে। ভালুকা ও ত্রিশাল উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে শত শত মৎস্য খামার রয়েছে ওইসব খামারের উৎপাদিত শত শত টন মাছ ঢাকা সহ বিভিন্ন জেলায় রপ্তানী হয়ে থাকে। তাছারা প্রত্যেক জেলা থেকে কৃষকের উৎপাদিত বিভিন্ন ফসল ট্রাক ভরে ঢাকা সহ বিভিন্ন জেলায় সরবরাহ করা হয়। এসব কারনে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহা সড়কটির গুরুত্ত এ অঞ্চলের মানুষের কাছে অনেক বেশী।

এ ব্যাপারে জানতে সওজ এর এসডিই’র মুঠোফোনে ফোন দিলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি। বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) ভালুকা আঞ্চলিক শাখার সদস্য সচিব ভালুকা প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি কামরুল হাসান পাঠান কামাল জানান দুদিন আগে ময়মনসিংহ হতে বাসে আসার সময় তিনি রাস্তার বেহাল অবস্থা দেখে এসেছেন। কয়েক মাস পূর্বে সড়কের ওই অংশ সংস্কার করা হলেও পুনরায় আগের মত খানা খন্দে ভরে গেছে। যাত্রীদের নিরাপদ চলাচলের সুবিধার্থে অবিলম্বে মহা সড়কের ওই অংশ সংস্কার করা জরুরী।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অন্যান্য বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৯৩৯১ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই